ডেঙ্গু রোগীদের সঠিক চিকিৎসা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

স্বাস্থ্য

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের সঠিকভাবে চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।
তিনি বলেন, আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত একজন রোগীও চিকিৎসা সেবার বাইরে নেই। যারা ডেঙ্গু রোগীর সেবা দেন তাদের প্রশিক্ষণও দেয়া হয়েছে।


স্বাস্থ্যমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. মিলন হলে ‘ডেঙ্গু : চেঞ্জিং ট্রেন্ডস অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট আপডেট’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিন এই সেমিনারের আয়োজন করে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অনেক দেশে ডেঙ্গুতে শত শত মানুষ মারা গেছে। এবার দেশে ডেঙ্গুর হার বেশি হবার কারণ, এডিস মশা বেশি। এরা বাসাবাড়িতে থাকে। প্রডাকশনও বেশি। আমরা চেষ্টা করছি এই মশা নিয়ন্ত্রণ করতে।


তিনি বলেন, সিটি কর্পোরেশনকে নিজেদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। দেশবাসীকেও নিজেদের বাড়িঘর পরিষ্কার করতে হবে। মশা ধ্বংস করতে পারছি না তাই এত সমস্যা। আমরা চাই না ডেঙ্গু রোগী দিয়ে হাসপাতাল ভরে যাক। আমরা প্রাইভেট হাসপাতালগুলোকে বলেছি, তারা যেন ভুল চিকিৎসা না দেয়।


ডেঙ্গুর সর্বশেষ তথ্য তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত (১ জানুয়ারি ২৩ জুলাই) ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৭৬৬ জন এবং ঢাকার বাহিরে ৯৪ জন। এ বছর বিভিন্ন হাসপাতালে সেবা নিয়েছে ৫ হাজার ৯৩৮ জন। বর্তমানে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১৮২৩ জন। এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মৃত্যুবরণ করেছে ৮ জন।


ডেঙ্গু রোগের ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্য বিভাগের নেয়া পদক্ষেপ তুলে ধরে তিনি বলেন, চলতি বছরে এ পর্যন্ত ২৩টি সরকারি, ৪১টি বেসরকারি হাসপাতাল ও দুই সিটি কর্পোরেশনের প্রায় ২ হাজার জন চিকিৎসক ও নার্সকে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।
জাহিদ মালেক বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গভীর মনোযোগের সাথে সমগ্র ডেঙ্গু পরিস্থিতি ও চিকিৎসা ব্যবস্থ্য পর্যবেক্ষণ করছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ মিডফোর্ড হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ঢাকা শহরের অন্যান্য সকল সরকারি হাসপাতালের মেডিসিন ও শিশু বিভাগে কর্মরত চিকিৎসকবৃন্দ ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগীদের সুষ্ঠু ও তাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থ্যপনা নিশ্চিত করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।


সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক মো. বিল্লাল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রি. জে. এ কে এম নাসির উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *