আশুলিয়ায় ভিবিন্ন অপকর্মের অভিযোগ আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়কের বিরুদ্ধে ।

রাজনীতি


সাভার প্রতিনিধি :
গত  ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই আগের কমিটি বিলুপ্ত করে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কাযনির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক মো. কবির হোসেন সরকারকে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক ও মইনুল ইসলাম ভুঁইয়াকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট এ আহ্বায়ক কমিটি ৯০ দিনের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়। এবং  সেই সাথে আগামী তিন মাসের মধ্যে সব ইউনিয়নের কমিটি গঠনের পর সম্মেলনের মাধ্যমে পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠনের নির্দেশ  দিয়েছিলেন যুবলীগের চেয়ারম্যান। অথচ এর ২ বছর  পার হয়ে গেলেও এখনো সব ইউনিয়নের পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি যুবলীগের নতুন এই আহ্বায়ক কমিটি।

অন্যদিকে আহ্বায়ক কমিটি পাওয়ার পর পরই নিজেদের আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে ইউনিয়ন কমিটি গঠন করার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও জমি দখল, ঝুট ব্যবসা দখল ও চাদাবাজীর অভিযোগও রয়েছে নতুন এই কমিটির সদস্যদের বিরুদ্ধে। এসব কারনে এখন পর্যন্ত যুবলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠিত হয় নাই বলে দাবী করছেন যুবলীগের অনেক নেতাকর্মীরা।

নতুন কমিটি পাওয়ার পর থেকেই যুবলীগ নেতারা চাঁদাবাজি, জমি দখল ও ঝুট ব্যবসা দখল করতে শুরু করে দিয়েছে। তাদের হাত থেকে যুবলীগের স্থানীয় নেতারাও রক্ষা পায় নাই বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সাম্প্রতিক আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকার ও তার ইউনিয়ন যুবলীগ নেতাদের  বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজী, জুট ব্যবসা ও জমি দখলের অভিযোগ  উঠেছে  এসেছে ।       
কবির হোসেন সরকারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগঃ    
আশুলিয়ায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার সময় সাবেক  ইয়ারপুর ইউপি যুবলীগ নেতার মাথা ফাটিয়ে দেয়ার ঘটনায় এক কলঙ্কিত অধ্যায়ের জন্ম দেয়।  এ  ঘটনায় আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়ক কবির হোসেন সরকারসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে  (নং-৫০) । 
আশুলিয়ার  নরসিংহপুরে বুড়িপাড়া এলাকায় নীট এশিয়া গার্মেন্টসের  একটি পোশাক কারখানার ঝুট ব্যবসা দখল ও যুবলীগের সাবেক নেতা বজলুর রহমানকে মারধরের অভিযোগে থানা যুবলীগের আহবায়কসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে  বজলুর রহমানের স্ত্রী রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। 
গাজীপুরের কাশিমপুরে আধিপত্য বিস্তার ও জমি নিয়ে দ্বন্দ্বে এক গাড়িচালককে কুপিয়ে জখম ও পিটিয়ে চোখ নষ্ট করে দেয় আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন । এ ঘটনায়  গাড়ির মালিকের বড় ভাই আবিদ হোসেন সরকার লিমন বাদী হয়ে কাশিমপুর থানায়  যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকারকে প্রধান করে ৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ১০ জনকে আসামি মামলা  করেন।
উজ্জল সরকার নামের এক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, তিনি বাগবাড়ি এলাকার ৪৬ শতাংশ একটি জমি ক্রয়ের পর ভোগ দখল করে আসছে। সম্প্রতি যুবলীগ নেতা ওই জমি নিজের দাবী করে তার কাছ থেকে ২০ লাখ টাকা চাদা দাবী করেন। তবে উজ্জল সরকার চাঁদার টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে কবির হোসেন সরকার প্রকাশ্যে গুলি বর্ষন করে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টির পর জমি নিজের দখলে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় উজ্জল সরকার বাদী হয়ে যুবলীগ নেতা সহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে আশুলিয়ার যুবলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা অভিযোগ করে বলেন, নিজেদের আধিপাত্ব্য বিস্তার ধরে রাখার জন্য যুবলীগের আহ্বায়ক ও যুগ্ন- আহ্বায়কের আত্মীয় স্বজনদের দিয়ে ইউনিয়ন পর্যায়ে বিভিন্ন কমিটি গঠন করে । এর ফলে যোগ্যতা ও জন সমর্থন থাকা স্বত্তেও দলের জন্য যারা বছরের পর বছর নিরলস পরিশ্রম ও রাজপথে থেকে বিএনপি-জামায়াতকে প্রতিহত করেছে সেই সব ত্যাগী নেতারা নেতৃত্ব থেকে বঞ্চিত হয়েছে।
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকারের মুঠোফোনে একাধিবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *