লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙন। প্রায় ২০ হাজার পরিবার ভাঙনের শিকার।

সারাদেশ

আজিজুর রহমান আযম: লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে নদী তীরের বাসিন্দারা। গত পনেরো দিনের কমলনগর ও রামগতি উপজেলার কয়েকটি এলাকায় ভাঙন ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। এসময়ে বিলীন হয়েছে শত বছরের বিভিন্ন স্থাপনা ছাড়াও তিন শতাধিক ঘরবাড়ি। স্থানীয়দের দাবি, গত ২০ বছরে এমন তীব্র ভাঙনের মুখে পড়েননি তারা। এতে প্রতিদিন উৎকণ্ঠা নিয়ে দিন কাটছে নদী তীরের মানুষদের।
গত এক সপ্তাহ ধরে যেভাবে ভাঙন চলছে তা আগে কখনো দেখেনি এ অঞ্চলের মানুষ। শুধু বৃহস্পতিবারেই লুধুয়া এলাকায় শত বছরের একটি মসজিদ, একটি কমিউনিটি কিনিক, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইকোন শেল্টারসহ বহু স্থাপনা নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। দীর্ঘদিন ধরে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসলেও কেউ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। এ বিষয়ে সরকারের জরুরি হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন কমলনগরের সব শ্রেণি- পেশার মানুষ।

ভাঙ্গন রক্ষায় নামেমাত্র ব্যাগ ডাম্পিং করা হচ্ছে। স্থানীয়রা বলছেন, অপরিকল্পিতভাবে কাজ করায় ব্যাগ ডাম্পিং করেও কোনো লাভ হয়নি। নিন্মমানের জিও ব্যাগ ও বালুর পরিবর্তে মাটি ব্যবহারের কারণে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। সরকারের কোটি কোটি টাকা বেহাত ও অপচয় হয়েছে। এমনকি জিও ব্যাগের পরিবর্তে ব্যবহার করা হয়েছে সার ও লবণের বস্তা। যে কারণে ভাঙন ঠেকানো যায়নি বলে এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *