আশুলিয়ায় বিএনপি নেতা কর্তৃক তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগ।

ক্রাইম রিপোর্ট


শাহাদাৎ হোসেন আশুলিয়া
আশুলিয়ার কান্দাইল গ্রামের মোঃ সাফাজ উদ্দিন (৬০) পিতা মৃত আব্দুল মজিদ মোল্লা নামে এক বিএনপি নেতা মোস্তফা নামে এক বেক্তির যোগ সাযেশে নিজ কর্তৃক প্রায় এক থেকে দেড় হাজার বাসা বাড়িতে তিতাস গাসের অবৈধ সংযোগ দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে গেলে দেখা যায়। সাফাজ উদ্দিন ও নামে বিএনপি নেতা একত্রিত হয়ে প্রতেক বাড়ি থেকে রাইজার প্রতি ২০/২৫ হাজার টাকা নিয়ে তিতাস গ্যাসে অবৈধ সংযোগ দিয়ে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ।

এব্যপারে সাফাজ উদ্দিন এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন। আমি কোন বাড়িতে গ্যাস সংযোগ দেইনি,তবে আমার বাড়িতে সহ এই পুরো গ্রামে অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগ গুলো দিয়েছেন মোস্তফা মৃধা নামে এক বেক্তি। বিষয়টি জানার জন্য মোস্তফা মৃধার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি দেশের বাহিরে থাকায় তা সম্ভব হয় নি। এব্যপারে এলাকাবাসি জানান প্রথমে মোস্তফা মৃধা এ সংযোক গুলো দিলেও সেই লাইন উদচ্ছেদ অভিযান হলে পরর্বতিতে পুণরায় বিএনপি নেতা সাফাজ উদ্দিন সংযোগ এ গ্যাস সংযোগ গুলো দিয়েছেন। আর অপরিকল্পিত ভাবে নিম্ন মানের পাইপ৷ দিয়ে তিতাস গ্যাসের সংযোগ গুলো দেয়ায় বিভিন্ন স্থানে গ্যাস পাইপ ফেঁটে গ্যাস বেড় হয়ে যাচ্ছে । যেন দেখার কেও নেই। এতে করে সরকার যেমন হারাচ্ছে রাজস্ব। আর যে কোন দূর্ঘটণার সিকার যে কোন মূহুর্তে বড় ধরনের দূর্ঘটনার সিকার হবে সাধারণ মানুষ । খোঁজ নিয়ে জানা যায় বিএনপি নেতা সাফাজ উদ্দিন এর নামে আশুলিয়া থানায় জ্বালাও পোড়াও মামলায় সহ একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানা যায়। প্রায় তিন মাস কারাগারে ছিলেন, তিনি। বর্তমানে সাফাজ উদ্দিন বিভিন্ন অপরাধ মুলক কাজে জরিত আছেন বলে জানা গেলেও সেই বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আসা বাদী এলাকার সচেতন মহল। এব্যপারে তিতাস গ্যাস কর্তিপক্ষ আবু সাহাদ সায়েম মোল্লার সাথে কথা বললে তিনি বলেন আমরা একাধিক বার অবৈধভাবে নেয়া তিতাস গ্যাস সংযোগ উদচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছি। তার পরও যদি কেও পুনরায় আবার অবৈধ সংযোগ দিয়ে থাকে তাহলে ঔ লাইন অচিরেই আবার উদচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা সহ সংযোগ কারীকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শুধু তাই নয় অবৈধ সংযোগ কারী যেই হোক কাউকেই ছাড় দেওয়া হবেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *