স্থলবন্দর বেনাপোল আমদানি-রপ্তানি-লোড-আনলোড সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক চলছে।

অর্থনীতি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আনোয়ার হোসেন।যশোর থেকে

স্থলবন্দর বেনাপোল হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়ন দখল নিতে স্হলবন্দর হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক নেতা বহিরাগত দের একটি চক্র দল গত সোমবার সকালে স্হলবন্দর এলাকায় শতাধিক শক্তিশালী হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় বেনাপোল স্হলবন্দরে আমদানি রপ্তানি লোড-আনলোড বন্ধ হয়ে যায়।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০ টার পর থেকে আমদানি-রপ্তানি-লোড-আনলোড সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে। বেলা ১১টা পর্যন্ত  ৫০ ট্রাক আমদানিকৃত পণ্য ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন।

উল্লেখ্য গত সোমবার বেলা ১১টার পর বেনাপোল স্হলবন্দরের শ্রমিক ইউনিয়ন দখল কে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের  মধ্য সংঘর্ষ ও বোমাবর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এ সময় দূর্বৃত্তরা প্রায় শতাধিক বোমাবর্ষণ করে। এতে বোমার আঘাতে এক জন পুলিশ সহ সাত জন শ্রমিক আহত হয়।

৯২৫ শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদক অহিদুজ্জামান অহিদ জানায়, বর্তমানে শ্রমিকরা বন্দর এ শান্তি শিক্ষলার সাথে কাজ করছে। কিন্তু একটি কুচক্র পক্ষ তাহা ভালভাবে না নিয়ে ষড়যন্ত্র করে স্হলবন্দরের সুন্দর পরিবেশ নষ্ট করতে চাইছে। এ ঘটনায় গতকাল বন্দরএ লোড-আনলোড  আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও আজ সকাল থেকে শ্রমিকরা পুরোদমে কাজ শুরু করেছে।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্মা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া জানায়, গতকাল বন্দরে বোমাবর্ষণের ঘটনায় থানায় ৩৬ জনের নামে একটি মামলা হয়েছে। এবং আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাশাপাশি গতরাতে স্হলবন্দর এলাকা থেকে একটি প্রাইভেটকার সহ একটি বিদেশী পিস্তল ৫ রাউন্ডগুলি এবং ৪টি তাজা বোমা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্হলবন্দর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বেনাপোল স্হলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) আব্দুল জলিল জানায়, গতকাল স্হলবন্দর দখল কে কেন্দ্র করে বন্দর এলাকায় দুইটি শ্রমিক সংগঠনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় স্হলবন্দরএ লোড-আনলোড ও আমদানি-রপ্তানি বন্ধ হয়েযায়।  আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে পুনরায়  আবারও আমদানি-রফতানি কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *