1. sokalerbangla@gmail.com : admin :
  2. Jahid0197@gmail.com : jahid hasan : jahid hasan
  3. sholimuddin1986@gmail.com : Sholim Uddin : Sholim Uddin
February 24, 2024, 12:41 am
Title :
সদরপুরের ভাষাণচরে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা দ্বি-বার্ষিক পরিদর্শনে পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায় আশুলিয়ায় সামান্য বৃষ্টিতে পানির নিচে রাস্তা—হাজার হাজার শ্রমিকসহ জনগণের চরম দুভোর্গ! চমেক হাসপাতাল থেকে আবারো ১ দালাল গ্রেপ্তার রাজশাহী পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত: সেনা প্রধান শফিউদ্দিন আহমেদ তানোরে যুবলীগ নেতা জিয়াউর হত্যার ঘটনায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা রাজশাহী পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের উদ্যোগে প্রেস রিলিজ গাইডলাইন ও ভিডিও এডিটিং বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়ি , পানছড়ি থানায় (এক) কেজি গাঁজা সহ ০২(দুই) জন আসামী গ্রেফতার গাজীপুরের শ্রীপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার, বিক্রি হচ্ছে ২০০-২১০ টাকায়

Reporter Name
  • Update Time : Sunday, December 10, 2023,
  • 114 Time View

মোঃ আফতাবুল আলম
দৈনিক চৌকস পত্রিকা
রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি

ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের খবরে ফের নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়েছে নিত্য প্রয়োজনীয় এই পণ্যের বাজার। বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২১০ টাকা কেজি দরে। বাজারভেদে এই দাম একেক জায়গায় একেক রকম।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) রাজশাহী জেলার পবা উপজেলার নওহাটা বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রাজশাহী জেলার মোহনপুর উপজেলার মৌগাছি ও বিদিরপুর বাজার ঘুরে দেখা গেছে, এখানে ২০০-২১০টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। আর ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৮০থেকে১৯০ টাকা দরে। দোকানভেদে দামের তারতম্য রয়েছে এই সব বাজারে।

নওদাপাড়া বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২১০টাকা দরে। তবে দু’একটি দোকানে বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা দরেও। সেখানেই ভিড় করছেন ক্রেতারা। এছাড়াও বিভিন্ন মুদি দোকানে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০০-২১০টাকা কেজি।

রাজশাহী সাহেব বাজার মাষ্টার পাড়া বাজার করতে আসা ফারুক হোসেন দৈনিক চৌকস পত্রিকার সাংবাদিকে বলেন, ‘আমরা পাবলিক কী খাবো? সব জিনিসের দাম এতো বেশি হলে আমরা চলবো কীভাবে। একদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম দিগুণ হয়ে গেলো, এগুলো দেখার কী আদৌ কেউ আছে? আমার তো তা মনে হয় না। বাজারে কারো নিয়ন্ত্রণ নেই, আছে শুধু সিন্ডিকেটের নিয়ন্ত্রণ।’

বিদিরপুর বাজারে বাজার করতে এসে হারুন বলেন, দাম নিয়ে কথা বলে লাভ নাই। আমরা এগুলো দেখতে দেখতে আসছি। এখন অভ্যাস হয়ে গেছে। কিনে খেতে পারলে খাবো, নইলে না খেয়ে থাকবো। আমাদের তো হাত-পা বাঁধা। কিছুই তো করার নেই আমাদের মতো পাবলিকের।

এতো বাড়তি দামে পেঁয়াজ বিক্রির কারণ জানতে চাইলে খুচরা ব্যাবসায়ী সবুজ বলেন, আসলে আমাদের তো কিছু করার নাই। দাম এখন অনেক বেশি। পাইকারি রেটও অনেক বেশি চলছে, আমরা তো সীমিত লাভ করি। আমরাও তো চাই একটু কম দামে পেঁয়াজ বেচতে। মানুষ তো আমাদের সাথে উচ্চ স্বরে কথা বলে পেঁয়াজের দাম বেশি চাইলে, কিন্তু আমরা কি বলবো বলেন

এদিকে, পেঁয়াজের মূল্য স্থিতিশীল ও সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

ভারত সরকার নিজেদের দেশের বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক ও দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে মার্চ মাস পর্যন্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ থাকবে। এই নির্দেশনা শুক্রবার থেকে কার্যকর হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved dailychoukas.com 2018
Theme Customized BY LatestNews